যেখানে হিমশিম খাচ্ছে বিভিন্ন রাষ্ট্র,সেখানে প্রশংসা কুড়িয়ে নিলো ৯ বছরের আফিয়া

138
ছবি সংগৃহীত

করোনা পরিস্থিতিতে বিশ্ব বিপর্যস্ত। প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম আর পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) যোগান দিতে হিমশিম খাচ্ছে বিভিন্ন রাষ্ট্র। এই দুর্যোগের সময় মোকাবেলা করতে মানুষের পাশে দাড়ানো যে জরুরি সেটা অনুভব করতে পেরেছে ৯ বছরের এক স্কুল ছাত্রী। সামর্থ্য যাই হোক তা দিয়ে মহামারী করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের এক অনন্য উদাহরণ তৈরি করেছে মালয়েশিয়ার ৯ বছরের নূর আফিয়া। মালয়েশিয়ায় মার্চে করোনা প্রাদুর্ভাবের পর থেকেই সে স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য নিজ হাতে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) বানিয়ে সহায়তা করছে। তার এ উদ্যোগের কথা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায়।

দক্ষিণ মালয়েশিয়ায় নেগিরি সেমবিলান রাজ্যের কুয়ালা পিলা শহরের বাসিন্দা আফিয়া। করোনার মহামারিতে সে কিছু করার ইচ্ছা থেকেই এই কাজ শুরু করে। সে তারমাকে বলে চিকিৎসক, নার্স, চিকিৎসাকর্মীদের জন্য নিজেই সেলাই করে বানিয়ে দেবে পিপিই। আফিয়া স্থানীয় চিকিৎসাকর্মীদের জন্য দিনে চারটি করে পিপিই বানাচ্ছে। আফিয়া মাত্র পাঁচ বছর বয়সেই সেলাই করতে শিখেছে। এই রমজানেও আফিয়ার কাজ থেমে নেই। রোজা রেখেই সেহেরির পর পরই সে সেলাই করতে বসে যায়।

ইতোমধ্যে স্থানীয় দুই হাসপাতালের জন্য প্রায় ১৩০টি পিপিই তৈরি করেছে সে। এখনো প্রায় ৬০টি পিপিই তৈরি হচ্ছে। সেগুলো তুলে দেয়া হবে চিকিৎসাকর্মীদের জন্য।

তার এই কাজ শুধু মালয়েশিয়াতেই নয়, সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সারা দুনিয়ায় নেটিজেনদের প্রচুর প্রশংসা কুড়িয়েছে।